Tuesday, February 26, 2013

উবুন্টুতে দুই ক্লিকে ইন্টারনেটে কানেক্ট করার পদ্ধতি

ইন্টারনেটের গুরুত্ব আপনার কাছে আর কি বলবো। আপনি এই মুহূর্তে একটি ব্লগ সাইট পড়ছেন। আপনি নিশ্চয়ই সুবিধাটা ভাল করেই জানেন।

ইউএসবি মোডেম দিয়ে উবুন্টুতে নেট কানেক্ট করা একটু কষ্টের। (এই কষ্টটা সিটিসেল/জুম ব্যবহারকারীদের জন্য বেশী। গ্রামীন বা বাংলালিংকের মোডেম দিয়ে নাকি এই পদ্ধতিতে কানেক্ট করা যায়। তবে আমি কখনো চেষ্টা করি নি।) কিন্তু (GSM) মোবাইল দিয়ে নেট কানেক্ট করা উইন্ডোজের চাইতে সহজ। শুধু ৫ থেকে ৬টা ক্লিক করেই সেটাপ, আর দুই ক্লিকে কানেক্ট করা যায়! এর চেয়ে সহজ আর কি হতে পারে।

আমি Symphony SOAP FT10 সেট দিয়ে রবির সিম ব্যবহার করে নেট কানেক্ট করেছি। তবে মোডেম সাপোর্ট করে এমন যেকোন সেট দিয়েই এভাবে ব্রাউজ করা সম্ভব। চায়না যেকোন মোবাইল দিয়ে আশা করি এভাবে অনায়াসে কানেক্ট করতে পারবেন।

ইন্টারনেট থাকলে লিনাক্সের সত্যিকার শক্তিটি উপলব্ধি করা যায়। তাহলে আর দেরী না করে শুরু করুন। এজন্য লাগবে:

১. একটি EDGE/GPRS সাপোর্টেড মোবাইল ফোন সেট যেটি কম পোর্টের সাহায্যে  মোডেম হিসেবে ব্যবহার করা যায়;
২. একটি GSM সিম (সিটিসেল ছাড়া যেকোন সিম);
৩. মোবাইলটির জন্য ডাটা কেবল;
৪. এবং উবুন্টু তো লাগবেই!

স্টেপ-১: ইন্টারনেট প্যাক কিনুন:

প্রথমে ডিফল্ট হিসেবে সিমগুলোতে Pay per use প্ল্যান এক্টিভেট করা থাকে। এটি মোবাইলের অল্প স্বল্প ব্রাউজের জন্য ভাল। কিন্তু কম্পিউটারে ব্রাউজ করতে গেলে ডাটা তো একটু বেশি লাগবেই। তাছাড়া ডাউনলোড করলে তো কথাই নেই। তাই আপনাকে মেগাবাইটের প্যাকেজে মাইগ্রেট করতে হবে। তখন আপনি সাশ্রয়ী রেটে ইন্টারনেট ব্যবহার করতে পারবেন।

আপনার সিম অনুযায়ী সেটাপ ভিন্ন হবে। তাই আমি এখানে বিস্তারিত উল্লেখ করছি না।

রবি

রবির দুটি প্যাক আমার খুব পছন্দের। একটি হচ্ছে ২০০মেগাবাইট @ ৫০৳+ভ্যাট, মেয়াদ ১ দিন। আরেকটি হচ্ছে ৪০০মেগাবাইট @ ৫০৳+ভ্যাট, মেয়াদ ২দিন (রাত ১টা থেকে সকাল ৬টা)। দ্বিতীয় প্যাকটি আমি যতবারই ব্যবহার করেছি অনেকটা আনলিমিটেডের মতই ব্রাউজ করেছি এবং পুরোটা কোনবারই শেষ করতে পারি নি।

এছাড়াও রেগুলার ব্যবহারের জন্য আরেকটি প্যাক হল ১জিবি @ ২৭৫৳+ভ্যাট, মেয়াদ ৩০ দিন। সাশ্রয়ী আরেকটি প্যাক হচ্ছে ১০০মেগাবাইট @ ১০০৳+ভ্যাট, মেয়াদ ৩০ দিন। এরকম ৩ জিবি থেকে ৫ জিবি পর্যন্ত Monthly packs আছে।

বিস্তারিত এখানে

গ্রামীণফোন

অনেক প্যাকেজ আছে। যদিও দাম একটু বেশি। ৯৯মেগাবাইট @ ৯৯৳+ভ্যাট, মেয়াদ ১৫দিন একটি প্যাকেজ রয়েছে যেটি অনেকে পছন্দ করতে পারেন। রাতে যারা ব্রাউজ করতে চান তাদের জন্য ৫জিবি @ ২৫০৳+ভ্যাট, মেয়াদ ১ মাস (P3) প্ল্যানটি নিতে পারেন।১জিবি @ ৩০০৳+ভ্যাট, মেয়াদ ১ মাস (P6) দিয়ে রেগুলার ব্যবহার করতে পারেন।
বিস্তারিত এখানে

বাংলালিংক

এদেরও অনেক প্যাক আছে। ২০০ মেগাবাইট @ ৫০৳+ভ্যাট, মেয়াদ ১ দিন (P4) প্যাকটি হঠাৎ ব্যবহারের জন্য ভাল। তাদের P11 প্যাকটি একটু ভিন্ন - আনলিমিটেড ভোর ৫টা থেকে সকাল ১০টা এবং বাকি সময় ১.০৩৳+ভ্যাট @ ২০৳। সকাল বেলা একটু বাদশাহী ভাব দেখাতে এই প্যাকটি মন্দ নয়। এছাড়াও রয়েছে ১ জিবি @ ২৭৫৳+ভ্যাট, মেয়াদ ১মাস (P6)। যারা রাত জাগা পাখি তাদের জন্য আনলিমিটেড, রাত ১২টা থেকে সকাল ৮টা @ ৩০০৳+ভ্যাট, মেয়াদ ১ মাস (P3) প্ল্যানটি বেশ লোভনীয়। (সপ্তাহে ৩জিবির বেশি ব্রাউজ করলে অবশ্য একটু সমস্যা আছে।)
বিস্তারিত এখানে

টেলিটক

টেলিটকের প্যাকগুলো বেশ সাশ্রয়ী। ২জি/৩জি দুই প্রকার সিমের জন্য বিভিন্ন প্যাক  আছে। যারা ৩জি সিম ব্যবহার করছেন তারা ১জিবি পাবেন @ ১৭৫৳+ভ্যাট, মেয়াদ ৩০ দিন!! আরো অনেক প্ল্রান আছে যেগুলোতে ৫১২কেবিপিএস, ১এমবিপিএস, ২এমবিপিএস পর্যন্ত স্পিড পাওয়া যাবে। ২জির জন্য : ২৫০মেগাবাইট @ ১০০৳+ভ্যাট, মেয়াদ ১৫দিন (D4)। ১জিবি @ ২০০৳+ভ্যাট, মেয়াদ ৩০দিন (D5)। আনলিমিটেড @ ৬০০৳+ভ্যাট, মেয়াদ ৩০দিন (D6)।
বিস্তারিত এখানে

স্টেপ-২: সেটাপ করুন

১. প্রথমে ডাটা কেবল দিয়ে আপনার মোবাইলটি কম্পিউটারের সাথে যুক্ত করুন।

২. লিস্ট থেকে COM port সিলেক্ট করুন।

৩. এখন নোটওয়ার্ক ইন্ডিকেটর আইকনে ক্লিক করে New mobile broadband (GSM) connection... মেনুতে ক্লিক করুন।

Click the  network indicator and then click new...

৪. Continue চাপুন।

৫. দেশ সিলেক্ট করুন... Bangladesh

৬. আপনার টেলিকম প্রতিষ্ঠান সিলেক্ট করুন। এখানে কিন্তু বাংলাদেশের সব টেলিকম কোম্পানিই আছে। অবাক হচ্ছেন? উবুন্টু অনেক আধুনিক এবং লোকালাইজেশন ফ্রেন্ডলি।

৭. APN সিলেক্ট করুন। এখানে উল্লেখ্য, আপনি যদি ঠিকমত এপিএন না দেন তাহলে আপনার বিল বেশি আসতে পারে। কাজেই সাবধানে এপিএনটি দিন। প্রয়োজনে উপরে বিস্তারিত লিংকগুলো থেকে প্যাকের জন্য সঠিক এপিএনটি জেনে নিন।


৮. এখন আপনার নেট কানেক্ট হবার চেষ্টা হবে এবং কিছুক্ষণের মধ্যেই নেট কানকশন পেয়ে যাবে


স্টেপ-৩: কানেক্ট করা

প্রথমবারে তো অটোমেটিক কানেক্ট হয়ে গেল। কিন্তু পরেরবার কিভাবে কানেক্ট করবেন? পদ্ধতিটি দেখে নিন।

১. আগের মতই ডাটা কেবল দিয়ে মোবাইলটি কম্পিউটারের সাথে যুক্ত করুন এবং মোডেমের জন্য মোড সিলেক্ট করুন (Com port)।

২. শুধু নেটওয়ার্ক ইন্ডিকেটরে ক্লিক করে আপনার তৈরি করা কানেকশনটিতে ক্লিক করুন... ব্যস! কিছুক্ষণের মধ্যেই উপভোগ করুন ইন্টারনেট।



কানেক্ট হয়ে গেলে নেটওয়ার্ক বার দেখতে পাবেন, যেটি দেখাবে কতটুকু স্ট্রং নেটওয়ার্ক সিগনাল পাচ্ছে। এখন উপভোগ করুন একদম নিরাপদ ব্রাউজিং, কোনো ভাইরাসের টেনশন ছাড়া!

উবুন্টুতে এভাবে ইন্টারনেটে কানেক্ট করা খুব সহজ। শুধু হাতের কাছে একটা মোডেম সাপোর্টেড ফোন থাকলেই হল। এই কানেক্ট করার কাজটা উইন্ডোজে করতে গেলে খবর হয়ে যেত। মোবাইলের ড্রাইভার ছাড়া কানেক্ট করা ইম্পসিবল হত।

কানেক্ট করা অবস্থায় সিমটা এনগেজড দেখাবে এই আরকি! এই পদ্ধতিতে Lubuntu, Xubuntu, Kubuntu, Linux Mint ইত্যাদি ডিস্ট্রতে খুব সহজেই নেটে কানেক্ট করা সম্ভব।

(সতর্কতা: মোবাইলে লিথিয়াম আয়ন ব্যাটারি ব্যবহৃত হয়। লিথিয়াম আয়ন বা লিআয়ন ব্যাটারি তাপে এর ক্ষমতা অনেক তাড়াতাড়ি হারায়। মোবাইল দিয়ে নেট ব্যবহার করলে মোবাইল অত্যধিক গরম হয়ে যায়। এতে করে ব্যাটারিতে তাপ পৌছে গিয়ে ব্যাটারির কিছুটা ক্ষতি করতে পারে।)

0 comments:

 

Blogroll

Translate This Blog

Copyright © আদনানের ব্লগ Design by BTDesigner | Blogger Theme by BTDesigner | Powered by Blogger